রিয়া চক্রবর্তীর আবেদন খারিজ করলো সুপ্রিম কোর্ট, বিহার ও মুম্বাই পুলিশ দুপক্ষকেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত

1613

ওয়েব ডেস্ক : কিছুদিন আগেই রিয়া চক্রবর্তী সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিলেন যাতে সুশান্তের পরিবারের তরফে বিহারে দায়ের করা এফআইআর মুম্বাই পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সে অনুযায়ী বুধবার এই পিটিশনের শুনানি হওয়ার কথা ছিল। এদিন গোটা দেশের নজর ছিল সুপ্রিম বিহার কোর্টের দিকে। রিয়া চক্রবর্তীর এই আবেদনের ভিত্তিতে বুধবার বিচারপতি  হৃষিকেশ রায়ের বেঞ্চে শুনানি হয়। কিন্তু পুরো ঘটনা বিবেচনা করে এদিন বিচারপতি জানান, এই ঘটনায় বিহার ও মুম্বাই পুলিশ দুপক্ষই ঘটনার তদন্ত করতে পারবে, এছাড়া রিয়া চক্রবর্তীকে কোনো সুরক্ষাকবচ দেবে না সুপ্রিম কোর্ট। এদিন শীর্ষ আদালতের এই সিদ্ধান্তের জেরে স্বাভাবিকভাবেই অনেকখানি অস্বস্তি বাড়ল রিয়া চক্রবর্তী ও মহারাষ্ট্র সরকারের।

 

বুধবার শুনানি চলাকালীন সুপ্রিম কোর্টকে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, মঙ্গলবার বিহার সরকারের তরফে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের দাবি করা হয়েছিল। সেই আবেদনে ইতিমধ্যেই মান্যতা দিয়েছে কেন্দ্র। আদালতে এ কথা জানান সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা। তবে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে মামলা যাওয়াই নয়, একইসাথে এদিন সুশান্তের পরিবারের তরফে সুশান্তকে একাধিকবার আত্মহত্যা করার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। এর জেরে মূল অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তীকে কোনওরকম সুরক্ষাকবচ দিতে অস্বীকার করল সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে মুম্বই ও বিহার পুলিশ দুপক্ষই রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারবে বলেই মনে করা হচ্ছে৷ এদিনের শুনানিতে রিয়ার পক্ষ থেকে এদিন আদালতে সওয়াল করেন আইনজীবী শ্যাম দিওয়ান। বিহারে দায়ের করা এফআইআরটি দ্রুত মুম্বইয়ে হস্তান্তর করা এবং রিয়াকে সুরক্ষাকবচ দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছিল। কিন্তু এই আবেদনের বিরোধিতা করে সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী বিকাশ সিং জানান, ‘প্রমাণ লোপাটে সেটা মদত জোগাবে’।

আরও পড়ুন -  বিশ্বভারতীর ঘটনায় উপাচার্যের পাশে দাঁড়ালেন দিলীপ ঘোষ, কাঠগড়ায় রাজ্য সরকার

 

এদিকে এদিনের শুনানিতে বিচাপতি বিহার ও  মহারাষ্ট্র সরকার এবং রিয়া ও সুশান্তের পরিবারের বক্তব্য, কেন্দ্রের বাদানুবাদ শোনবার পর বিচারপতি হৃষিকেশ রায় নির্দেশ দেন- রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে গম্ভীর অভিযোগ রয়েছে মৃতের পরিবারের তরফে, সেকারণে আবেদনকারী রিয়া চক্রবর্তী  এই মামলা পাটনা থেকে মুম্বইয়ে হস্তান্তর করার জন্য আবেদনও জানিয়েছিলেন। কিন্তু যেহেতু বিহার সরকার ইতিমধ্যেই এই  মামলা সিবিআইয়ের হাতে দেওয়ার আবেদন করেছে,সেহেতু সেই আবেদন মঞ্জুর করেছে কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্র সরকারের তরফে সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা দুপ্রিম কোর্টে জানান আজকের মধ্যেই সিবিআই তদন্তের আনুষ্ঠানিক নোটিফিকেশন জারি করবে কেন্দ্র।

আরও পড়ুন -  আমফান' পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রাজ্যে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে অতিথি, এক মাসেই ভোলবদল রাজ্যের, খোঁচা বিজেপির

 

পাশাপাশি, শীর্ষ আদালতের তরফে বুধবার মহারাষ্ট্র সরকারকে তিনদিনের সময় দেওয়া হয় এবং বলা হয় মুম্বই পুলিশ গত ৫১ দিন ধরে এই মামলার কী তদন্ত করেছে তার বিস্তারিত রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টে জমা দিতে হবে। আপাতত মামলার সঙ্গে জড়িত সকল পক্ষকে জবাব দেওয়ার জন্য তিনদিনের সময় দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই ঘটনায় রিয়া চক্রবর্তীর আবেদন খারিজ করে শীর্ষ আদালত বলেন, কোনওরকম সুরক্ষাকবচ দেওয়া হবে না রিয়া চক্রবর্তীকে। আদালত জানিয়েছে আপতত মুম্বই ও বিহার পুলিশ উভয়পক্ষই এই মামলার তদন্ত চালাতে পারবে।  এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আগামী সপ্তাহে।

রিয়া চক্রবর্তীর আবেদন খারিজ করলো সুপ্রিম কোর্ট, বিহার ও মুম্বাই পুলিশ দুপক্ষকেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত 1