ইউরোপ থেকে ফিরে নিজেকে ঘরবন্দী রাখতেন সুশান্ত, বিস্ফোরক দাবি সুশান্তের নিরাপত্তারক্ষীর

68

ওয়েব ডেস্ক : সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের জট ক্রমশ আলগা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই সুশান্তের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত শুরু করেছে পাটনা পুলিশ। দিন দুয়েক আগেই শোনা গিয়েছিল, সুশান্তের বিশ্বস্ত দেহরক্ষীকে ছাড়িয়ে দিয়েছিল রিয়া। এবার সুশান্তের নিরাপত্তারক্ষী বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে৷ তিনি স্পষ্ট জানান, অভিযোগ দায়ের করে সঠিক কাজ করেছে কেকে সিং। এখানেই থেমে থাকেননি তিনি৷ আরও বেশ কিছু নতুন তথ্য তিনি তুলে ধরেন যা এতদিন অজানা ছিল সুশান্তের পরিবার ও অনুরাগীদের কাছে। তিনি বলেন, ইউরোপ থেকে ফেরার পর থেকেই ক্রমশ অসুস্থ হয়ে পড়তে শুরু করেন সুশান্ত। এমনকী, ইউরোপ থেকে ফেরার পর থেকেই দিনের বেশিরভাগ সময়ই অভিনেতাকে ঘরের মধ্যে শুয়ে থাকতে দেখা যেত। তবে কেন তিনি সব সময় চার দেওয়ালের মধ্যেই বন্ধ করে রাখতেন নিজেকে তার সদুত্তর অবশ্য দিতে পারেননি ওই ব্যক্তি।

আরও পড়ুন -  শিলিগুড়িতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত শিক্ষক, আতঙ্কে দুই মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিল স্ত্রী

নিরাপত্তা রক্ষী আরও বেশ কয়েকটি বিস্ফোরক অভিযোগ করেন। তার অভিযোগ, ইউরোপ থেকে ফিরে সুশান্ত যখন অসুস্থ অবস্থায় ঘরে শুয়ে থাকতেন, সেসময় একই বাড়িতে থাকা সত্ত্বেও সেভাবে সুশান্তের খেয়াল রাখতেন না রিয়া৷ এমনকি অভিনেতা কেন নিজেকে ঘরবন্দী করে রেখেছেন সেদিকেও নজর দেননি তিনি। বরং সেই সময় প্রায় প্রতিদিনই সুশান্তের বাড়িতেই তার অনুপস্থিতিতে পার্টির আয়োজন করতেন রিয়া চক্রবর্তী। এদিকে পাশের ঘরেই থাকতাও সুশান্ত, কিন্তু তাকে ডাকার প্রয়োজন মনে করতো না। রিয়ার পাশাপাশি তাঁর বাবা এবং ভাইয়েরও প্রায় প্রতিদিনই সুশান্তের ফ্ল্যাটে আনাগোনা করতে দেখা যেত।

তবে সুশান্ত ওষুধের বেশি মাত্রা প্রয়োগের জন্যই সব সময় শুয়ে থাকতেন কি না, তা স্পষ্টভাবে জানাতে পারেননি তাঁর নিরাপত্তারক্ষী৷ তবে তাঁর দাবি, সুশান্ত এমন মানুষ নন। সর্বদা প্রাণ খোলা সুশান্তকে আগে কোনোদিনই এভাবে দিনের পর দিন চারদেওয়ালের মধ্যে বন্ধ থাকতে দেখা যায়নি৷ শরীর চর্চা থেকে শুরু করে শ্যুটিং, বিভিন্ন কাজের মধ্যে সব সময় ব্যস্ত থাকতেন সুশান্ত। তবে ইউরোপ থেকে ফেরার পরই সুশান্ত যেন এক্কেবারে অন্যরকম হয়ে যান। তিনি আরও দাবি করেন, সুশান্তকে তাঁর পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে দিত না রিয়া৷ একেবারে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। তবে সুশান্তের নিরাপত্তা রক্ষীর বয়ান ইতিমধ্যেই রেকর্ড করেছেন বিহার পুলিশ। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে তদন্তের গতি যেভাবে এগোচ্ছে তাতে মনে করা যাচ্ছে খুব শীঘ্রই গরাদের ওপারে যেতে চলেছেন আসল অপরাধী।

ইউরোপ থেকে ফিরে নিজেকে ঘরবন্দী রাখতেন সুশান্ত, বিস্ফোরক দাবি সুশান্তের নিরাপত্তারক্ষীর 1