করোনায় আক্রান্ত কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, চিন্তার ভাঁজ রাজনৈতিক মহলে

229
করোনায় আক্রান্ত কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, চিন্তার ভাঁজ রাজনৈতিক মহলে 1

ওয়েব ডেস্ক : রাজ্যে যে হারে করোনার পারদ ঊর্ধমুখী হচ্ছে তাতে করোনা সংক্রমণ ক্রমশই বাড়ছে। সাধারণ মানুষতো বটেই সে সাথে এই মারণ ভাইরাসের কবল থেকে বাদ যাচ্ছেন না মন্ত্রীরাও। একের পর এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ক্রমশ করোনায় সংক্রমিত হচ্ছেন। এবার মারণ ভাইরাসে সংক্রামিত হলেন রাজ্যের ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। বেশকিছুদিন যাবৎ অসুস্থ থাকার পর গত সোমবার তিনি করোনা পরীক্ষা করান। এরপর মঙ্গলবার তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আপাতত তিনি বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন -  জঙ্গলমহলে সিলিকোসিসে মৃত্যু মিছিল,ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে মৃত্যুর মুখে আরও অনেকে

জানা গিয়েছে, বেশ কয়েকদিন ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থ বোধ করছিলেন স্বপন দেবনাথ। সোমবার করোনা পরীক্ষা করানো হয়। মঙ্গলবার রিপোর্টে জানা যায় তিনি করোনয় আক্রান্ত। এরপর মঙ্গলবার রাতেই তাঁকে বর্ধমান থেকে কলকাতায় এনে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ইতিমধ্যেই জেলা স্বাস্থ্যদফতরের তরফে জানানো হয়েছে, গত কয়েকদিন স্বপনবাবুর সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন, তাঁদের চিহ্নিত করে দ্রুত কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে। এমনকি নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে তাঁদের করোনা পরীক্ষাও করা হবে। গত কয়েকমাসে বেশ কয়েকজন প্রথম সারির মন্ত্রীরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। আপাতত করোনাকে জয় করে পুনরায় কাজেও যোগ দিয়েছেন তাঁরা। এবার স্বপনবাবুর শরীরে মারণ ভাইরাসের দ্রুত সংক্রমণ ছড়াতে স্বাভাবিকভাবেই চিন্তায় রাজনৈতিক মহল। তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছে ঘনিষ্ঠ মহল।

করোনায় আক্রান্ত কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, চিন্তার ভাঁজ রাজনৈতিক মহলে 2

বরাবরই কর্মঠ এই মন্ত্রী করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনে যখন সকলে করোনা ভয়ে কাঁটা হয়ে ঘরের মধ্যে ছিলেন, সেসময় নিজের সাধ্যমত গরীব দুঃখীদের সাহায্য করেছেন। যেটুকু কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন, তার পূর্ণ সদ্ব্যবহার করেছেন। শুধু তাই নয়, সাধারণ মানুষের সাথে কখনও বিলে নেমে তা পরিষ্কার, আবার কখনও ১০০ দিনের কাজে শ্রমিককে সাহায্য করতে মাটির ঝুড়ি বওয়া, নানান ভূমিকাতে দেখা গিয়েছে বর্ধমানের স্বপন দেবনাথকে। এমনকি করোনাকালে করোনা রোগীদের দেখভালের দায়িত্ব থেকেও পিছপা হননি স্বপনবাবু। পিপিই পরে তিনি দিনের পর দিন হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন। তবে এত সতর্কতা মানা সত্ত্বেও মারণ ভাইরাসকে দূরে সরানো গেল না৷ অবশেষে করোনা ভাইরাস থাবা বসাল রাজ্যের ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্পমন্ত্রী স্বপন দেবনাথের শরীরে।