মিমি চক্রবর্তীকে হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার ট্যাক্সিচালক

260
Advertisement

ওয়েব ডেস্ক: কখনও বয়ফ্রেন্ডকে ধমকে চমকে চুপ করিয়ে দেওয়া কখনও আবার গুন্ডাদের পিটিয়ে ঠান্ডা করা, সিনেমায় তাকে একাধিকবার মিমি চক্রবর্তীকে ‘টম বয়’ হিসেবে দেখছেন দর্শকরা। তবে এবার সিনেমায় নয় বাস্তবেই রণংদেহী রূপ নিলেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এতদিন কলকাতার রাস্তায় একাধিক মহিলার শ্লীলতাহানির খবর শিরোনামে এসেছে৷ এবার এক ট্যাক্সিচালকের হেনস্থার শিকার হলেন খোদ তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। অভিনেত্রীকে উদ্দেশ্য করে কটূক্তি এবং অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করেন এক ট্যাক্সিচালক। ঘটনার পর মিমির অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার রাতেই বাবা যাদব নামে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি ট্যাক্সিচালককে গ্রেফতার করেছে গড়িয়াহাট থানার পুলিশ।

Advertisement

এই ঘটনায় সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর অভিযোগ, সোমবার রাতে তার সাথে দেহরক্ষী না থাকায় একাই নিজের গাড়িতে জিম থেকে বাড়ি ফিরছিলেন মিমি। কিন্তু বালিগঞ্জ ও গড়িয়াহাটের মাঝামাঝিতে সিগন্যাল পড়ে যাওয়ায় তাঁর গাড়িটি বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকে। আচমকা অভিনেত্রী লক্ষ্য করেন তাঁর গাড়ির ঠিক পাশের ট্যাক্সির চালক মত্ত অবস্থায় তাঁর দিকে তাকিয়ে অশ্লীল অঙ্গিভঙ্গি করছে। বিষয়টি কয়েক মিনিট লক্ষ্য করেন তিনি। এরপর দেরি না করে গাড়ি থেকে নেমে ওই ট্যাক্সি ড্রাইভারকে বের করে এনে, তাকে এধরণের কাজ ভবিষ্যতে না করতে সাবধান করা হয়। কিন্তু মিমির কথা কানেই তোলেননি অভিযুক্ত। তখনই মিমিকে উদ্দেশ্য করে কটূক্তি করতে থাকে বাবা যাদব নামে ওই ট্যাক্সিচালক।

Advertisement
Advertisement

এদিকে সাংসদ অভিনেত্রীকে ওভাবে দ্রখে স্বাভাবিকভাবেই রাস্তায় জটলা হয়ে যায়। সেকারণে ভিড় না বাড়িয়ে তখনকার মতো সেখান থেকে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে যান মিমি। এরপর সোজা গড়িয়াহাট থানায় গিয়ে ওই ট্যাক্সি চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অভিনেত্রী। মিমির অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার রাতেই ওই ট্যাক্সিচালকের খোঁজ করে আনন্দপুর থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতের বিরুদ্ধে ভারতীয় সংবিধানের ৩৫৪, ৩৫৪এ, ৩৫৪ডি এবং ৫০৯ ধারায় অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ