প্রার্থী বিক্ষোভে ধুন্ধুমার কালিয়াগঞ্জে; কর্মীদের হাতে‌ মার খেলেন বিজেপি নেতা, বৈঠকে যাওয়ার পথেই নিখোঁজ প্রার্থী

231
প্রার্থী বিক্ষোভে ধুন্ধুমার কালিয়াগঞ্জে; কর্মীদের হাতে‌ মার খেলেন বিজেপি নেতা, বৈঠকে যাওয়ার পথেই নিখোঁজ প্রার্থী 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: প্রার্থী বিক্ষোভের জেরে কালিয়াগঞ্জে ধুন্ধুমার কাণ্ড; দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করতে কালিয়াগঞ্জ কেন্দ্রের প্রার্থী সৌমেন রায়কে সঙ্গে নিয়ে যেতেই বিজেপির জেলা শীর্ষ নেতৃত্বের কপালে জুটল শারীরিক ও মানসিক হেনস্তা। কাণ্ড দেখে প্রচারের যাওয়ার আগেই পালিয়ে বাঁচলেন বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়। এমনকি তিনি বর্তমানে কোথায় আছেন তার হদিশ দিতে পারছেন না বিজেপির জেলা নেতৃত্বও। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলায়।

বহিরাগত প্রার্থীর বিরুদ্ধে একেই ক্ষোভে ফুঁসছিলেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপির যুব মোর্চা থেকে মহিলা মোর্চা ও বিজেপির কর্মী সমর্থকেরা। এরই মধ্যে প্রচারে এসে আরও বড় বিপত্তিতে পড়লেন বিজেপি প্রার্থী সৌমন রায় এবং তাঁরই জন্য দলীয় কর্মীদের হাতেই শারীরিক হেনস্থা হতে হল বিজেপির জেলা কো-কনভেনরকে। দলীয় কর্মীদের হাতেই মারধর খেতে হল বিজেপি জেলা নেতৃত্বকে।

প্রার্থী বিক্ষোভে ধুন্ধুমার কালিয়াগঞ্জে; কর্মীদের হাতে‌ মার খেলেন বিজেপি নেতা, বৈঠকে যাওয়ার পথেই নিখোঁজ প্রার্থী 2

বিজেপি সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাতেই আলিপুরদুয়ার থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় আসেন কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়। কালিয়াগঞ্জের প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষের মধ্যেই প্রার্থী সৌমেন রায় সহ বিজেপির জেলা শীর্ষ নেতৃত্ব। বুধবার শহরে বিবেকানন্দ মোড়ের হনুমান ভবনে বিজেপি কার্যকর্তাদের বৈঠকে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন বিজেপির কো-কনভেনর ও। কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা এলাকার বাঘন বটতলী এলাকায় ১০ নম্বর রাজ্য সড়কে আচমকাই বিজেপি কর্মী সমর্থকেরাই প্রার্থী সহ অন্যান্য নেতৃত্বের উপর বাঁশ, লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়। ভাঙচুর করা হয় একটি গাড়িও। দলের কর্মীদের হামলায় আহত হন জেলা বিজেপির কো-কনভেনর সহ অন্যান্য বিজেপি কর্মীরা।

যদিও এই ঘটনার পর থেকেই আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়ের। শুধু তাই নয়, কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীর হদিশ দিতে পারছেন না বিজেপির জেলা নেতৃত্বও। কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার প্রার্থীকে নিয়ে বিজেপি কর্মীদের ক্ষোভ এতটাই যে প্রার্থীসহ জেলা বিজেপি নেতৃত্বকে প্রচার করতেই দেওয়া হবে না দেখেই এই হামলা হয়েছে বলে অনুমান বিজেপি নেতৃত্বের একাংশের। বিজেপির জেলা কো-কনভেনর জানিয়েছেন তাঁর উপর হামলা হয়েছে। ভাঙচুর করা হয়েছে তাদের গাড়িও। এই ঘটনা বিজেপির প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ না তৃনমূলের চক্রান্ত তা বোঝা যাচ্ছেনা, বলেই দাবী করেন তিনি।

তবে বুধবার সকাল থেকেই কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী থেকে শুরু করে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা প্রার্থী বদলের দাবীতে কালিয়াগঞ্জ শহরের বিবেকানন্দ মোড়ে রায়গঞ্জ বালুরঘাট রাজ্য সড়ক আগুন জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান। তারা অভিযোগ করেন, “বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব একজন চরিত্রহীন, বহিরাগত ব্যক্তিকে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে প্রার্থী করেছে। ফলে এলাকার মহিলারা সুরক্ষিত থাকবে না।“ এমনকি কালিয়াগঞ্জে বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায় প্রচারে আসলে তাকে জুতো এবং ঝাঁটাপেটা করা হবে বলেও তারা জানিয়েছিলেন।