নিয়মবিধি মেনে গোটা দেশে ৪ অক্টোবরই হচ্ছে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা, পরীক্ষা পিছনোর আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টের

142
নিয়মবিধি মেনে গোটা দেশে ৪ অক্টোবরই হচ্ছে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা, পরীক্ষা পিছনোর আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টের 1

ওয়েব ডেস্ক : করোনা আবহে ইউপিএসসির সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার জন্য সুপ্রিমকোর্টে একটি আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই আবেদন খারিজ করলো সর্বোচ্চ আদালত। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের তরফে জানানো হয়, নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে আগামী ৪ অক্টোবর হবে পরীক্ষা।

জানা গিয়েছে, সম্প্রতি করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর ভয় ও অন্যদিকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রবল বন্যা পরিস্থিতির কথা তুলে ধরে, পরিস্থিতি বিচার করে আপাতত ইউপিএসসি-র প্রিলিম পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন করা হয় সুপ্রিম কোর্টে। সেই আবেদনের ভিত্তিতে বুধবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এ এম খানওয়ালিকর ও বিচারপতি সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চ এই আবেদন একেবারে খারিজ করে দেয়। পাশাপাশি এদিন দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ রায় দেন যাঁরা এবছর শেষবার পরীক্ষা দেবেন তাঁরা যাতে আরও একবার পরীক্ষায় বসার সুযোগ পান ইউপিএসসি-কে সেবিষয়ে চিন্তাভাবনা করার কথা বলেন শীর্ষ আদালত।

নিয়মবিধি মেনে গোটা দেশে ৪ অক্টোবরই হচ্ছে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা, পরীক্ষা পিছনোর আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টের 2

প্রসঙ্গত, প্রতি বছরের মতো এবছরও ৩১শে মে ইউপিএসসি-র প্রিলিম পরীক্ষা নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেসময় এদেশে করোনা পরিস্থিতি একেবারে ঊর্ধগগনে। সে কারণে সেসময় বাধ্য হয়েই ৪ অক্টোবর পরীক্ষা পিছনো হয়। জানা গিয়েছে, এবছর মোট ৬ লক্ষ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় বসবে। দেশের মোট ৭৩ টি শহরে পড়বে সিট। পরীক্ষা পিছনোর বিষয়ে বুধবার ইউপিএসসি শীর্ষ আদালতের তরফে জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই পরীক্ষার আয়োজনে ৫০ কোটি টাকা খরচ হয়ে গিয়েছে। ফলে এই মূহুর্তে যদি কোনওভাবে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়, তবে বিপুল টাকার আর্থিক ক্ষতি হবে। এসমস্ত কথা মাথায় রেখে বুধবার পরিক্ষা পিছনোর আবেদন খারিজ করলো সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন -  রেহাই নেই 'শ্রমিক স্পেশাল'য়েও, পরিযায়ীদের মৃত্যু চলছেই, রেল সফরেই ৮০ শ্রমিকের মৃত্যুর অভিযোগ