‘মানুষের মত বাঁচার অধিকার আছে করোনা ভাইরাসেরও; প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর আজব মন্তব্যে হতবাক নেট পাড়া

124
Advertisement

বিশ্বজিৎ দাস: “করোনাভাইরাসও একটা প্রাণী। আমাদের মতো তারও বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে।“ হ্যাঁ এমনই মন্তব্য করেছেন উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত। করোনাকে ‘জীব’ হিসেবে উল্লেখ করে রাওয়াত জানান, “করোনাভাইরাসও একটা প্রাণী। আমাদের মতো তারও বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে। কিন্তু, আমরা, মানুষরা নিজেদের সবচেয়ে বুদ্ধিমান বলে মনে করি। তাই ওদের ধ্বংস করতে নেমে পড়েছি। এই কারণেই, মিউটেশনের মাধ্যমে ভাইরাস প্রতিনিয়ত নিজের চরিত্র বদল করছে।”

Advertisement

এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেন উত্তরাখন্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত। আর তাঁর এমন মন্তব্যের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় দ্রুতই। সঙ্গে সঙ্গে নেটাগরিকেরাও মেতে ওঠে মসকরায়। যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি বিবি শ্রীনিবাস ট্যুইটার হ্যান্ডেলে ত্রিবেন্দ্র রাওয়াতের মন্তব্যের ভিডিও পোস্ট করে লিখেছেন, ‘উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, করোনাও এক প্রাণী। তাহলে তো এর আধার কার্ড ও রেশন কার্ডও হবে।’ আর এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘করোনা যখন প্রাণী, তখন একে সেন্ট্রাল ভিস্তায় আশ্রয় দেওয়া হোক।’

Advertisement
Advertisement

তবে এই প্রথম নয়, এর আগে উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত গরুকে গোমাতা বলার কারণ বুঝিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “গরুই একমাত্র প্রাণী, যারা অক্সিজেন গ্রহণ করে আবার অক্সিজেনই ত্যাগ করে। গরুর সঙ্গে রোজ কিছুক্ষণ সময় কাটালে শ্বাসকষ্টজনিত রোগ সেরে যায়।”

আর এইবার করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে যখন নাজেহাল ভারতবাসী। দিন যত যাচ্ছে ততই উদ্বেগ বাড়িয়ে জটিল হচ্ছে দেশের করোনা পরিস্থিতি। সেই সময় ভাইরাসের প্রতি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর এতটা দরদ। একদিকে প্রতিনিয়ত ঊর্ধ্বমুখী আক্রান্ত ও মৃতের গ্রাফচিত্র। চারিদিকে জ্বলছে গণ চিতা, অক্সিজেন, বেডের আকাল। মানুষের হাহাকার আর নিদারুণ অসহায়তার ছবি ভেসে উঠছে। গত একবছর ধরে এই পরিস্থিতির সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত হচ্ছি এখনও। এমন একটা সময় যখন মারণ করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা করতে কার্যত দিশেহারা দেশ থেকে বিশ্ব, ঠিক সেই সময়ে দেশের এক রাজনীতিবিদ করোনা ভাইরাসের ‘বেঁচে থাকার অধিকার’ নিয়ে মুখ খুললেন।