বই দেখেই দেওয়া যাবে ফাইনাল সেমিস্টার, পরীক্ষা সংক্রান্ত নিয়মবিধি ঘোষণা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের

77

ওয়েব ডেস্ক : বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনাল সেমিস্টার নিয়ে একাধিকবার জলঘোলা হওয়ার পর অবশেষে জল্পনার অবসান। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার বিষয়ে সোমবারই উপাচার্যদের সাথে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকের পর ওইদিনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, ‘ওপেন বুক’ পদ্ধতি অর্থাৎ ছাত্রছাত্রীরা বই দেখে তাদের পরীক্ষা দিতে পারবে । বুধবার সেই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়। এরপর এদিন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে পরীক্ষা সংক্রান্ত একাধিক বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন বিভাগে চলবে পরীক্ষা।

আরও পড়ুন -  মেদিনীপুর পুলিশ লাইনে 'করোনা' আক্রান্ত হনুমান! গুজবে আত্মারাম খাঁচাছাড়া আবাসনের

বুধবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে পরীক্ষাসংক্রান্ত একাধিক বিধিনিষেধ প্রকাশ করা হয়। সে অনুযায়ী জানানো হয়েছে, পরীক্ষার্থীদের অনলাইনের মাধ্যমে পরীক্ষা দিতে হবে। এই পরিস্থিতিতে হলে বসে পরীক্ষা দেওয়ার কোনও ব্যবস্থা থাকবে না। পাশাপাশি, ‘ওপেন বুক’ পদ্ধতির মাধ্যমে পরীক্ষা নেওয়া হবে। অর্থাৎ পরীক্ষার্থীরা বই দেখে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবেন। ইমেইল বা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর কাছে প্রশ্নপত্র পৌঁছবে। পরীক্ষা শেষ হলে ওই একই পদ্ধতিতে তাদের উত্তরপত্র জমা দিতে হবে।

একই সাথে আরও জানানো হয়েছে, প্রশ্নপত্র পাওয়ার পর ২৪ ঘন্টার মধ্যে পরীক্ষার্থীদের উওরপত্র জমা দিতে হবে৷ লকডাউনের আগে পর্যন্ত যেটুকু সিলেবাস পড়ানো হয়েছে তার উপর ভিত্তি করেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। এবছর নিজের কলেজের অধ্যাপকেরাই খাতা দেখবেন। খাতা অন্য কোথাও পাঠানো হবে না। কোনও পরীক্ষার্থী যদি চায়, তবে নিয়মবিধি মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েও উওরপত্র জমা দিতে পারে। দীর্ঘ কয়েকমাসের মাসের টানপোড়েনের পর শেষপর্যন্ত চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা ঘোষণায় স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তিতে পরীক্ষার্থীরা।

বই দেখেই দেওয়া যাবে ফাইনাল সেমিস্টার, পরীক্ষা সংক্রান্ত নিয়মবিধি ঘোষণা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের 1