স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জারি করা হল আনলক ২ এর বিধিনিষেধ, থাকছে নতুন ছাড়

116
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জারি করা হল আনলক ২ এর বিধিনিষেধ, থাকছে নতুন ছাড় 1

ওয়েব ডেস্ক : একদিকে প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, অন্যদিকে কেটে গিয়েছে আনলক ১ এর একমাস। ফলে ১লা জুলাই থেকে নতুনরূপে শুরু হতে চলেছে আনলক ২। এবিষয়ে মঙ্গলবার বিকাল ৪টেয় জাতির উদ্দ্যেশ্যে ভাষণ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সোমবার আনলক ২ এর নিয়ম কানুন ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। সেই সাথে গোটা দেশের কন্টেইনমেন্ট জোন গুলিতে ৩১ জুলাই পর্যন্ত পুরোপুরি লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া কন্টেইনমেন্ট জোনের আওতায় পড়ছে না এমন এলাকাগুলিতে ১লা জুলাই থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার প্রক্রিয়া জারি থাকবে বলেই জানা গিয়েছে।

একদিকে দেশের করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ ঊর্ধমুখী, অন্যদিকে দেশকে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরাতে উদ্যোগী কেন্দ্র। ফলে আনলক ১ এর তুলনায় আনলক ২ তে একাধিক ছাড় দেওয়ার ঘোষণা কর‍তে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ তবে আনলক ১ এর মতো আনলক ২ এর ক্ষেত্রেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়াভাবে লকডাউন পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সাথে বিভিন্ন রাজ্যে যে এলাকাগুলিতে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে, সেখানেও কড়া নজর রাখার কথা বলা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জারি করা হল আনলক ২ এর বিধিনিষেধ, থাকছে নতুন ছাড় 2

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকা অনুযায়ী, আনলক ১ এ নাইট কার্ফুর সময়সীমা ছিল রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা৷ আললক ২ সেই সময় কমিয়ে ১ জুলাই থেকে রাত ১০ টা থেকে ভোর ৫ অবধি এই কারফিউ জারি থাকবে। তবে এখানেই একটা বিশেষ পরিবর্তন করা হয়েছে। আগে নাইট কার্ফু চলাকালীন শুধুমাত্র জরুরী পরিষেবা ছাড়া কাউকে রাস্তায় বেরোনোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু আনলক ২ এর ক্ষেত্রে এই নিয়ম কিছুটা শিথিল করে শর্তসাপেক্ষে শিফটিং ডিউটি থাকা অফিসের কর্মচারীরা, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি-সহ অন্যান্যদের ছাড় দেওয়া হবে বলেই জানা গিয়েছে।

তবে আনলক ২ এও আগের মতই ৩১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ থাকবে স্কুল, কলেজ-সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বন্ধ থাকবে আন্তর্জাতিক উড়ান (বন্দে ভারত মিশন ব্যতিত), জিম, সুইমিং পুল, ধর্মীয়-সামাজিক জমায়েত। এগুলি কবে খোলা হবে, সে সম্পর্কে এখনো পর্যন্ত দিনক্ষণ ঠিক করা হয়নি। তবে দেশের সংক্রমণের পরিস্থিতির ওপর বিবেচনা করে পরবর্তী পর্যায়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷ বন্ধ থাকবে রেল, মেট্রো পরিষেবা, সিনেমা-থিয়েটার হল, বার। পাশাপাশি কনটেনমেন্ট জোনের বাইরে যে সকল দোকানগুলি রয়েছে সামাজিক দূরত্ব মেনে এবার থেকে একসাথে ৫ জনের বেশি ক্রেতা হাজির থাকতে পারবেন।

তবে আনলক ২ তে ১৫ জুলাই থেকে কনটেনমেন্ট জোনের বাইরে থাকা কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলি খোলা যাবে। তবে সেক্ষেত্রে আধিকারিক , প্রশিক্ষক ও প্রশিক্ষণ নিতে আসা প্রত্যেককেই নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে চলতে হবে। তবে এই সব ছাড়ই শুধুমাত্র কনটেনমেন্ট জোন নয় এমন এলাকাগুলির ক্ষেত্রে৷ কন্টেনমেন্ট জোনের ক্ষেত্রে আগের মতোই পুরোপুরি লকডাউনের বিধিনিষেধ মানতে হবে বলেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে। তবে নতুন ভাবে দেশের কোন কোন রাজ্যের কোন কোন এলাকাগুলি কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে তার বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে বলেই জানা গিয়েছে।

Previous articleকরোনায় আক্রান্ত আইসিএমআরের কলকাতা সদর দপ্তরের অধিকর্তা ড:শান্তা দত্ত
Next articleবিধিনিষেধ ভেঙে ১০০ জন আমন্ত্রিতদের নিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান, আক্রান্ত ৯৫ জন, মৃত খোদ বর