করোনায় মৃত বাবার জ্বলন্ত চিতায় ঝাঁপ শোকাতুর মেয়ের

165
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: করোনাকালে চরম মর্মান্তিক ছবি। করোনা আক্রান্ত হয়ে বাবার মৃত্যু সইতে না পেরে বাবার জ্বলন্ত চিতায় ঝাঁপ শোকাতুর মেয়ের। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের বার্মার জেলায়। যদিও তিনি বেঁচে যান, তবে তাঁর শরীরের অনেকটা অংশই ঝলসে গিয়েছে আগুনের তাপে।

Advertisement

জানা যায়, দামোদরদাস শারদা নামে বছর ৭৩- এর এক ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। মঙ্গলবার তাঁর দেহ সৎকারের জন্য শ্মশানে আনা হয়। সেখানে মৃত ব্যক্তির পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন। আচমকাই মৃতের ছোট মেয়ে চন্দ্রা শারদা বাবার চিতায় ঝাঁপ দিয়ে দেন। উপস্থিত লোকজন তাঁকে কোনওক্রমে চিতা থেকে নামিয়ে আনেন। কিন্তু এই ঘটনায় চন্দ্রার শরীরের বেশীরভাগ অংশ পুড়ে গিয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে অবস্থার অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে তাঁকে চিকিৎসার জন্য জোধপুর হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

Advertisement
Advertisement

কোতোয়ালী থানার পুলিশ আধিকারিক প্রেম প্রকাশ জানান, “দামোদরদাসের তিন মেয়ে। কিছুদিন আগেই দামোদরদাসের-স্ত্রীও মারা যান। ছোটো মেয়েটি বাবার মৃত্যু সইতে না পেরে চিতার আগুনে ঝাঁপ দিয়েছে।” পুলিশ আরও জানায়, বারমেড়ের রাই কলোনির বাসিন্দা দামোদরদাস। তাঁকে গত রবিবার জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। পুলিশ আরও জানিয়েছ, বাবার শেষকৃত্য যাওয়ার জন্য জেদ ধরেছিলেন তাঁর ছোট মেয়ে। কিন্তু পরিণাম যে এমন হতে পারে, তা হয়তো কেউ কল্পনাও করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, দেশে এখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যেন সুনামি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মঙ্গলবারেই পেরিয়ে গিয়েছিল ২ কোটির গণ্ডি। পাশাপাশি বুধবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশ জুড়ে মৃত্যু হয়েছে ৩,৭৮০ জনের। চারিদিকে শুধু যেন স্বজন হারানোর হাহাকার; অক্সিজেন সঙ্কট, হাসপাতালে শয্যা সঙ্কট, ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে চরম অব্যবস্থার অভিযোগ। এমতাবস্থায় এমন হৃদয় বিদারক দৃশ্য সত্যিই শিহরণ জাগানোর মত।