রাজ্য সরকারের নয়া সিদ্ধান্ত, এবার থেকে করোনা সন্দেহ মৃতদেহ তুলে দেওয়া হবে পরিবারের হাতে

53

ওয়েব ডেস্ক : এতদিন করোনা উপসর্গহীন কিংবা করোনা সন্দেহে মৃত ব্যক্তিদের মারা করোনা পরীক্ষা করাতে প্রায় ১০ থেকে ১২ ঘন্টা সময় লাগতো। ফলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পরিবারকে অপেক্ষা করতে হত। কিংবা অনেক সময় সংক্রমণ ছড়ানোর ভয়ে পরিবারের হাতে দেহ তুলে দেওয়া হতো না৷ এর ফলে অনেক ক্ষেত্রেই মৃত রোগী পরিবারের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়৷ তবে এবার থেকে আইসিএমআর-এর নয়া প্রোটোকল অনুযায়ী এবার থেকে পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হবে করোনা সন্দেহ রোগীর মৃতদেহ। মঙ্গলবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন -  আবারও ট্রেনের ধাক্কায় এক গর্ভবর্তী হস্তিনী সহ দুই হাতির মৃত্যু

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কেউ মারা গেলে হয়তো মৃত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হল। তার টেস্ট রিপোর্ট আগে হয়ে থাকলে আর অপেক্ষা করতে হবে না। আইসিএমআর-এর গাইডলাইন অনুযায়ী মৃতদেহ দিয়ে দেওয়া হবে। যে প্রোটোকল মেনটেন করা হয় সাধারণ ডেড বডির ক্ষেত্রে, সাসপেক্ট কোভিড ডেড বডি হলেও তাঁদের আর ওয়েট করতে হবে না। বাড়ির লোক ডেড বডি পেয়ে যাবেন। এটা রাজ্য সরকারের মানবিক সিদ্ধান্ত।”

এদিকে যেহেতু রাজ্যে সংক্রমণের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে সেকারণে সংক্রমণের শিকল ভাঙতে আপাতত আগস্ট মাস পর্যন্ত রাজ্যে সাপ্তাহিক লকডাউনের ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। সে অনুযায়ী আগস্ট মাসের কোন কোন দিন রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি থাকবে তার একটা তালিকা তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। তালিকা অনুযায়ী, আগস্ট মাসের ২, ৫, ৮, ৯, ১৬, ১৭, ২৩, ২৪, ৩১ তারিখ রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে৷ অর্থাৎ আগস্টের প্রতি রবিবার, তিনটি সোমবার একটি শনিবার ও একটি বুধবার জারি থাকছে লকডাউন। প্রসঙ্গত, শনিবার ইদ উপলক্ষে লকডাউন জারি না করা হলেও সামাজিক দূরত্ব এবং প্রয়োজনীয় সতর্কতা মেনেই সকলকে আনন্দ করার পরামর্শ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্য সরকারের নয়া সিদ্ধান্ত, এবার থেকে করোনা সন্দেহ মৃতদেহ তুলে দেওয়া হবে পরিবারের হাতে 1