মালদায় ভোটের লাইনে দাড়িয়ে বিজেপি প্রার্থীর প্রচার,নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে সরব শাসক দল

119
মালদায় ভোটের লাইনে দাড়িয়ে বিজেপি প্রার্থীর প্রচার,নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে সরব শাসক দল 1

নিউজ ডেস্ক: সোমবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের সপ্তম দফার ভোটগ্রহণ। এই পর্বে মালদা, মুর্শিদাবাদ, দুর্গাপুর, আসানসোল, দক্ষিণ দিনাজপুরের একাধিক কেন্দ্রের পাশাপাশি দক্ষিণ কলকাতার চার কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে।এরমধ্যেই লক্ষ্য করা যায় এক অদ্ভূত কাণ্ড। নির্বাচনী প্রচার ৪৮ ঘণ্টা আগে শেষ হলেও মালদার গাজোলে ভোটের লাইনে প্রচার চালালেন বিজেপি প্রার্থী।নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকেরা।

মালদায় ভোটের লাইনে দাড়িয়ে বিজেপি প্রার্থীর প্রচার,নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে সরব শাসক দল 2

এদিন সকাল সকাল স্নান সেরে হলুদ পাঞ্জাবি গায়ে চড়িয়ে গাজল বিধানসভা কেন্দ্রের ২১১ নম্বর বুথ রামচন্দ্র সাহা হাই স্কুলে সপরিবারে ভোট দিতে যান বিজেপি প্রার্থী চিন্ময় দেব বর্মণ। তৃণমূলের অভিযোগ, ভোট দিতে যাওয়ার পথে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। হাতজোড় করে ভোটারদের কাছে তাঁকে ভোট দেওয়ার অনুরোধ জানান। সেই ঘটনা তৃণমূলের নজরে আসতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। দুই-দলের মধ্যে বচসা বেঁধে যায়। তৃণমূল কর্মী সমর্থকদেরর দাবি, ভোটের লাইনে দাঁড়িয়েও প্রচার করছিলেন বিজেপি প্রার্থী।

মালদায় ভোটের লাইনে দাড়িয়ে বিজেপি প্রার্থীর প্রচার,নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে সরব শাসক দল 3

এরপরেই ঘাসফুল শিবিরের সমর্থকেরা বুথের দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের নজরে আনেন বিষয়টি। আধা সেনা গিয়ে তাঁকে বিরত করে। যদিও প্রচারের অভিযোগ অস্বীকা করেছেন বিজেপি প্রার্থী চিন্ময় দেব বর্মণ।

গত বিধানসভা নির্বাচনে গাজল কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন জোট প্রার্থী দিপালী বিশ্বাস। কিন্তু তারপরে তিনি দলবদল করে তৃণমূলে যোগ দেন। এরপর ২০২১ নির্বাচনের দিন কয়েক আগে বিজেপিতে যোগ দেন দিপালী।

Previous articleকেন্দ্রকে অসাড়, অনুভূতিহীন ও হৃদয়হীন বললেন অর্থমন্ত্রীর স্বামী! দেশের দৈনিক সংক্রমন ছাড়ালো ৩লক্ষ, দৈনিক মৃত্যু ৩ হাজার ছুঁয়ে
Next articleশেষ দফার আগেও অব্যাহত পুলিশে রদবদল ! এবার কেষ্টর গড়ে নজর কমিশনের