গ্রেফতারির ২৪ ঘন্টার মধ্যে ফের দ্বিতীয় অভিযোগ, মহিলা পুলিশ অফিসারকে হেনস্তা করার অভিযোগে অর্ণব গোস্বামী-র বিরুদ্ধে দায়ের এফআইআর

383
গ্রেফতারির ২৪ ঘন্টার মধ্যে ফের দ্বিতীয় অভিযোগ, মহিলা পুলিশ অফিসারকে হেনস্তা করার অভিযোগে অর্ণব গোস্বামী-র বিরুদ্ধে দায়ের এফআইআর 1
গ্রেফতারির ২৪ ঘন্টার মধ্যে ফের দ্বিতীয় অভিযোগ, মহিলা পুলিশ অফিসারকে হেনস্তা করার অভিযোগে অর্ণব গোস্বামী-র বিরুদ্ধে দায়ের এফআইআর 2

ওয়েব ডেস্ক : ২০১৮ সালে ইন্টেরিয়র ডিজাইনার অন্বয় নায়েক ও কুমুদ নায়েকের আত্মহত্যার ঘটনায় তাদের প্ররোচণা দেওয়ার মামলায় বুধবারই গ্রেফতার করা হয়েছে রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামীকে। এই ঘটনার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই এবার অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে আরও একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। জানা গিয়েছে বুধিবার অর্ণবকে গ্রেফতার করতে গিয়েছিলেনএক মহিলা পুলিশ অফিসার। অভিযোগ, সেসময় ওই মহিলা অফিসারকে আক্রমণ করে অর্ণব। ধস্তাধস্তিও হয়। এই ঘটনার পর বুধবারই অর্ণবের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন ওই মহিলা পুলিশ অফিসার।

সূত্রের খবর বুধবার এই ঘটনায় এনএম যোশী মার্গ থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে। জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে এক মহিলা পুলিশ অফিসার অর্ণব গোস্বামীর বাড়িতে তাঁকে গ্রেফতার করতে গেলে অফিসারকে অপমান করা হয়েছে বলেও অভিযোগ। এদিকে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই অর্ণবের বিরুদ্ধে ৩৫৩, ৫০৪, ৫০৬ ও ৩৪ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে অর্ণবকে গ্রেফতারের সময় তাকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ করে খোদ রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামী। বুধবার পুলিশের ভ্যানে যেতে যেতে সাংবাদিকদের সামনে চিৎকার করতে একাধিকবার অর্ণব গোস্বামী বলেন, “পুলিশ আমায় মেরেছে”।

গ্রেফতারির ২৪ ঘন্টার মধ্যে ফের দ্বিতীয় অভিযোগ, মহিলা পুলিশ অফিসারকে হেনস্তা করার অভিযোগে অর্ণব গোস্বামী-র বিরুদ্ধে দায়ের এফআইআর 3

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে কনকর্ড ডিজাইনসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ৫৩ বছর বয়সী অন্বয় নায়েক ও তাঁর মা কুমুদ নায়েক আলিবাগে আত্মঘাতী হয়েছিলেন। মৃত্যুর আগে সুইসাইড নোটে অন্বয় নায়েক অভিযোগ করেছিলেন, অর্ণব গোস্বামী, ফিরোজ শেখ এবং নীতেশ সারদার থেকে তিনি ৫.৪০ কোটি টাকা পান। সেই টাকা না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে আত্মহত্যা করেন অন্বয় নায়েক ও মা কুমুদ নায়েক। তবে এই ঘটনায় সেসময় তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন রিপাবলিক সম্পাদক অর্ণব। এর দুবছর পর চলতি বছর মে মাসে মহারাষ্ট্র স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে এই ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মামলা দায়ের করে মুম্বাই পুলিশ। এরপর সিআইডির তরফে এই মামলা তদন্ত শুরু হয়। এরপরই তদন্তের স্বার্থে বুধবার সকালে গ্রেফতার করা হয়েছে অর্ণব গোস্বামীকে।