রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে ‘নীরব’ রাজ্য, পুজোর আগে ট্রেন চালানো সম্ভব নয়, দাবি রেলের

217
রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে 'নীরব' রাজ্য, পুজোর আগে ট্রেন চালানো সম্ভব নয়, দাবি রেলের 1

ওয়েব ডেস্ক : পশ্চিমবঙ্গে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্যের একাধিক জায়গায় সাধারণ যাত্রীদের মধ্যে বিক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এর জেরে স্বাভাবিকভাবেই রেলের তরফে রাজ্যের সাথে আলোচনা করে লোকাল ট্রেন চালানোর পরিকল্পনার কথা জানানো হয়েছিল। কিন্তু রাজ্যের তরফে এবিষয়ে কোনও আগ্রহ দেখাচ্ছে না বলে আগেই অভিযোগ করেছিল রেল। বৃহস্পতিবারও রেলের তরফে ফের একই কথা জানানো হল। এদিন রেলের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হল, লোকাল ট্রেন চালানোর বিষয়ে রাজ্য সরকারের তরফে জবাব না দেওয়ায় পুজোর আগে লোকাল ট্রেন চালানো সম্ভব নয়। বৃহস্পতিবারই একথা স্পষ্ট জানান, শিয়ালদহ ডিভিশনের বিভাগীয় রেল আধিকারিক এসপি সিং।

আরও পড়ুন -  দরজায় বেল বাজলেই ছুটে যাচ্ছে সুশান্তের পোষ্য, মোবাইলে প্রভুর ছবিতেই মুখ গুঁজে 'ফাজ'

এদিন এসপি সিং জানান, রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য গত মঙ্গলবারই রাজ্যের সঙ্গে বৈঠকে বসার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৭২ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও নবান্নের তরফে সেই চিঠির জবাব রেলের দফতরে এসে পৌঁছয়নি। ফলে শহরতলীতে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে রাজ্যের এই চুপ করে থাকাতেই পুজোর আগে ট্রেন চালানো সম্ভব হচ্ছে না। জানা গিয়েছে, এবিষয়ে রাজ্যের গ্রিন সিগন্যাল মিললেই বৈঠকের মাধ্যমে ট্রেন চালানোর বিধিনিষেধ চূড়ান্ত করে ১০ দিনের মধ্যেই ট্রেন চালানো সম্ভব হবে।

এবিষয়ে রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের একাংশের মতে, এই মূহুর্তে গোটা রাজ্যে করোনা সংক্রমণ প্রতিদিন নজিরবিহীনভাবে বাড়ছে। এর মধ্যে সব থেকে খারাপ অবস্থা কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা। তবে শুধুমাত্র এই দুই জেলা নয়। পাশাপাশি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলাগুলিতেও এই মূহুর্তে হুহু করে বাড়ছে সংক্রমণ। ফলে স্বাভাবিকভাবেই মনে করা হচ্ছে, ট্রেন চালালে সংক্রমণ দ্বিগুণ বাড়বে বলেই এই মূহুর্তে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে কোনোরকম মন্তব্য করছে না নবান্ন।
রাজ্যের এই নীরবতা অন্তত সেই কথাই বলছে৷

রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে 'নীরব' রাজ্য, পুজোর আগে ট্রেন চালানো সম্ভব নয়, দাবি রেলের 2