৪৩ লক্ষ টাকার টেন্ডারের দখল নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে উত্তাল পূর্ব বর্ধমানের কালনা

240
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: মূখ্যমন্ত্রী যাই বলুননা কেন কাটমানি আর পঞ্চায়েতের উন্নয়নের টাকার ভাগ নেওয়ার লোভ সামলাতেই পারছেননা তৃণমূলের নেতারা। আর যে কারনে পঞ্চায়েতের টেন্ডার কেন্দ্র করে তৃণমূলেরই দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ উত্তাল হয়ে উঠল পূর্ব বর্ধমান জেলা। ঘটনায় গুরুতর আহত ১২ জনকে ভর্তি করতে হয়েছে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে।

Advertisement

Advertisement
Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
কালনার মন্তেশ্বর থানার শুশুনিয়া পঞ্চায়েতের মাত্র ৪৩ লক্ষ টাকা টেন্ডারের দখল নিয়ে শুক্রবারের রক্তাক্ত লড়াই বেআব্রু করে দিয়েছে স্থানীয় নেতাদের। জানা গেছে কিছু ঢালাই রাস্তা ও অন্য কাজের জন্য টেন্ডার ওপেনের কথা ছিল শুক্রবার। আর তাই নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু হয়  স্থানীয় নেতা নাসির উদ্দিন ও আরেক নেতা তন্ময় বন্দোপাধ্যায়ের  গোষ্ঠীর মধ্যে। তন্ময়ের লোকেদের পঞ্চায়েত অফিসে ঢুকতে না দিয়ে  নিজেরা জোর করে টেন্ডার পাস করেছিল বলে অভিযোগ। এই ঘটনাকে ঘিরেই শুরু হয় সংঘর্ষের।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
পঞ্চায়েত সমিতির কৃষি কর্মাধ্যক্ষ  অজয় রায় বলেন,  মন্তেশ্বর পঞ্চায়েত সমিতিতে থাকাকালীন অবস্থায় দুপুরের দিকে শুশুনিয়া পঞ্চায়েতের সদস্য ও অর্থ উপসমিতির দায়িত্বে থাকা জগবন্ধু আর আমাকে ফোনে জানায় যে পঞ্চায়েতে যাবার সময় ওনাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে বেশ কয়েকজন আটকে রাখে সেই খবর পেয়ে সভাপতির দায়িত্বে থাকা নাসির উদ্দিন খান তাকে ছাড়িয়ে আনতে গেলে তার ওপর বেশ কয়েকজন বাঁশ ও রড নিয়ে হামলা চালিয়ে তার এবং আরও বেশ কয়েকজনের   মাথা ফাটিয়ে দেয় হয় তন্ময়ের লোকেরা।তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় নামে ওই তৃণমূল নেতার  পাল্টা অভিযোগ,  অস্বচ্ছতার সঙ্গে পঞ্চায়েত চালাচ্ছে প্রধান। টেন্ডার ওপেনের দিনে ওরা গায়ের জোরে সব কিছু করতে চায় আর এই থেকে অশান্তির সূত্রপাত।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান বিধায়ক সৈকত মাজা এই বিষয়ে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি আজিজুল শেখ বলেন এই ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয় দলের উপর মহলে জানিয়েছি দোষীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে। অন্যদিকে  শুশুনিয়া পঞ্চায়েতের প্রধান পার্থ ঘোষ বলেন, টেন্ডার খোলার দিন ছিল আজ।  এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পঞ্চায়েতের বাইরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। কারা পঞ্চায়েতের ভেতরে ঢুকে পড়ে উত্তেজনা ছড়াল পুলিশকে তা দেখতে অনুরোধ করছি।পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে।