কোন্দলেই ঝুলে রইল নারায়নগড়, কেশিয়াড়ি খড়গপুরে ব্লক সভাপতি রদবদল

187
কোন্দলেই ঝুলে রইল নারায়নগড়, কেশিয়াড়ি খড়গপুরে ব্লক সভাপতি রদবদল 1
কোন্দলেই ঝুলে রইল নারায়নগড়, কেশিয়াড়ি খড়গপুরে ব্লক সভাপতি রদবদল 2
জেলা সভাপতিকে ঘিরে কোন্দলের সেই ছবি 

নিজস্ব সংবাদদাতা: খোদ জেলা সভাপতির বিরুদ্ধেই গোষ্টি কোন্দলে ইন্ধন দেওয়ার আভিযোগ তুলেছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার নারায়নগড় ব্লক সভাপতি। কিন্তু সেই সভাপতির বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থাই গ্রহন করতে পারলনা জেলা তৃনমূল। মঙ্গলবার শুভেন্দু অধিকারির উপস্থিতিতে জেলা নেতৃত্ব খড়গপুর ১ ও কেশিয়াড়ির ব্লক সভাপতি পরিবর্তন করা হলেও নারায়নগড় নিয়ে কোনও ব্যবস্থা গ্রহন করতে পারলনা জেলা।

কোন্দলেই ঝুলে রইল নারায়নগড়, কেশিয়াড়ি খড়গপুরে ব্লক সভাপতি রদবদল 3

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
এদিন খড়গপুর ১ ব্লকের নীলকণ্ঠ চক্রবর্ত্তীর পরিবর্তে অমর চক্রবর্ত্তী ও কেশিয়াড়ির পবিত্র শিটের পরিবর্তে অশোক রাউৎকে সভাপতি হিসাবে ঘোষনা করা হয়। জেলা কমিটি সূত্রে জানা গেছে, নীলকণ্ঠ বাবু প্রায় নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছেন অন্যদিকে জগদীশ দাসকে সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে কেশিড়িতে পবিত্র শিটকে আনা হলেও সংগঠনের কোনও উন্নতি না হওয়ায় নতুন করে সভাপতি করে  অশোক রাউৎকে আনা হল।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
যদিও নারায়নগড় নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়নি। এদিন নারায়নগড় নিয়ে দুটি সিদ্ধান্ত নেওয়ার ছিল। প্রথমত বর্তমান ব্লক সভাপতি মিহির চন্দ্র কয়েকদিন আগে জেলা সভাপতি অজিত মাইতিকেই গোষ্টি দ্বন্দের নায়ক বলেছিলেন। সেই কারনে তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তি মুলক ব্যবস্থা নেওয়া। অন্যদিকে নারায়নগড় ব্লক কমিটি ভেঙে দিয়ে থানা ভিত্তিক নারায়নগড় ও বেলদার আলাদা কমিটি তৈরি করা ও সভাপতি করা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জেলা কোর কমিটি সুত্রে জানা গেছে মিহির চন্দ্রকে এদিন চুড়ান্ত সতর্ক করা হয়েছে। তবে পুরোনো কমিটি বহাল রেখেই তাঁকেই আপাতত সভাপতি পদে রাখা হয়েছে। কোর কমিটির এক সদস্যের কথায় দুটি পৃথক কমিটির সভাপতির জন্য মিহির চন্দ্র ও গণেশ মাইতির নাম ভাবা হলেও মঙ্গলবার তা ঘোষনা করা হয়নি।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
সমস্যা হচ্ছে ইতিমধ্যেই নারায়নগড় থানা সাংগঠনিক কমিটি তৈরি করে তার আহ্বায়ক করা হয়েছে বিমল ভূঁইয়াকে। এখন তাকে হটাৎ করে সরিয়ে গণেশ মাইতির নাম সামনে চলে আসায় আবারও আরেক গোষ্টিদ্বন্দের সূত্রপাত হতে চলেছে নারায়নগড়ে। যে বিমল ভুঁইয়াকে সামনে রেখে সাংগঠনিক কমিটি গড়া হল তাঁকে পেছনের সারিতে ঠেলে দেওয়ার বিরুদ্ধে সেই জেলা কমিটির বিরুদ্ধেই গোষ্টিদ্বন্দ সৃষ্টির আভিযোগ আবার ঘুরে ফিরে আসছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জেলা কোর কমিটির এক সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করে জানালেন, ”শুভেন্দুর নেতৃত্বে আজ কোর কমিটির সভা হল অথচ আমাকে জানানো হয়নি। অজিত মাইতি আর নারায়নগড়ের বিধায়ক প্রদ্যোত ঘোষ  দায়িত্ব নিয়েছেন নারায়নগড়কে ডোবানোর। আমাদের ক্ষমতা কি তাকে রক্ষা করি? যাঁদের জন্য লোকসভায় আমরা গো হারা হারালাম তাদেরই মাথায় তুলে নাচানোর ব্যবস্থা হচ্ছে আবার।” 

Previous articleছন্দ কাটল গোপীবল্লভপুর কৃষি মেলার, মঞ্চে না উঠেই চলে গেলেন সাংসদ
Next articleফাঁস হল গেরুয়া ভ্রষ্টাচার, জামিয়ার ছাত্র আন্দোলনকে বিকৃত করতে ভুয়ো ছবি পোষ্ট করল বিজেপি মিডিয়া সেল