বিজেপির পর শাসক শিবির; টাকা বিলিয়ে ভোট কেনার অভিযোগ উঠল কসবার তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে

223
বিজেপির পর শাসক শিবির; টাকা বিলিয়ে ভোট কেনার অভিযোগ উঠল কসবার তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে 1

নিউজ ডেস্ক: ভোটের মুখে টাকা বিলিকরার অভিযোগ উঠল কসবার তৃণমূল প্রার্থী জাভেদ খানের বিরুদ্ধে। নির্বাচন কমিশনে এই বিষয়ে কমিশনে অভিযোগ জানাবে বলেও জানিয়েছে বাম শিবির। যদিও অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলেই দাবী করেছেন জাভেদ খান।

সম্প্রতি একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে একটি ব্যাগে নগদ টাকা ভরতে দেখা যায় একজনকে। সিপিএমের অভিযোগ, ভোটের মুখে টাকা বিলি করছেন কসবার তৃণমূল প্রার্থী জাভেদ খানের অনুগামীরা। ভিডিওকে কেন্দ্র করে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায়। বামেদের তরফে জানানো হয়, ভিডিও-সহ কমিশনে অভিযোগ জানাবেন তাঁরা। এবিষয়ে কসবার বাম প্রার্থী শতরূপ ঘোষ বলেন, “কমিশন আমাদের প্রার্থীদের আগেই জানিয়েছে নগদে কোনও লেনদেন করা যাবে না। তাহলে কীসের টাকা ব্যাগে ভরা হচ্ছিল?” কমিশনে যাবেন বলে জানিয়েছেন শতরূপও।

বিজেপির পর শাসক শিবির; টাকা বিলিয়ে ভোট কেনার অভিযোগ উঠল কসবার তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে 2

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে জাভেদ খানের দাবী, ভিডিও সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। তাঁর পাল্টা অভিযোগ, “যাঁরা এই ভিডিও প্রচার করেছেন, তাঁরাই এটি তৈরি করেছেন। তৃণমূল কোনওভাবেই এরকম কোনও ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়।” এই ঘটনার তদন্তের দাবীও জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েকদিন আগেই ঝাড়গ্রামের বিজেপি প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারের একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছিল, যেখানে দেখা গিয়েছিল, ঝাড়গ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুখময় শতপথী কর্মী সমর্থকদের নিয়ে জুবলি মার্কেটে প্রচারে বেরোন। সেখানে সকলের সঙ্গে জনসংযোগ করেন তিনি। সেইসময় প্রচার চলাকালীন ভেসে আসে কয়েকটি শব্দ-“ভোটের আগের দিন আসিস, খরচা দিয়ে দেব।” আর এমন ভিডিও ভাইরাল হতেই রীতিমত তোপ দাগে শাসক শিবির।

ঝাড়গ্রামের তৃণমূল প্রার্থী বীরবাহা হাসদাঁ নির্বাচন কমিশনের কাছে বিষয়টি জানান। তৃণমূল প্রার্থী বীরবাহা হাসদাঁ বলেন, বিজেপি বুঝে গিয়েছে যে ওরা জিততে পারবে না। তাই তারা সন্ত্রাস করে, লোভ দেখিয়ে চেষ্টা করছে ভোটে জেতার। কিন্তু এসবে কোনও লাভ হবে না, ভোটের পর সাধারণ মানুষ বুজেপিকে ছুঁড়ে ফেলে দেবে বলেই দাবী করেন তৃণমূল প্রার্থী বীরবাহা। তবে নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি প্রার্থী সুখময় শতপথী জানান, তিনি নিজের মতন বাজারে প্রচার কর্মসূচি সারছিলেন। ভিড়ের মধ্যে কে কি বলে উঠল সেটার দায় তাঁর নয়। সেদিন বিজেপি প্রার্থীও এই ঘটনার জন্য শাসক শিবিরকে দায়ী করেছিল।