সালিশির দাসপুরে আত্মঘাতী কিশোরী, একই দিনে ঘাটালে আত্মঘাতী আরেক কিশোরী

134
সালিশির দাসপুরে আত্মঘাতী কিশোরী, একই দিনে ঘাটালে আত্মঘাতী আরেক কিশোরী 1

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ কাঠ কুড়াতে গিয়ে জঙ্গলে শ্লীলতাহানির শিকার হয় এক কিশোরী। এরপর মেয়েটির অজান্তেই বাড়িতে গোপনে বসে গ্রামের মাতব্বর-দের সালিশি সভা, নিদান মানতে না পেরে অপমানে আত্মহত্যা করে বছর ১৫-র এক কিশোরী। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের বিষ্ণুপুর গ্রামে। মৃতা স্থানীয় নবম শ্রেণীর ছাত্রীর আত্মহত্যার জন্য দোষীর উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে দাসপুর থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয় বাসিন্দারা।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে মা বাবার সাথে জঙ্গলে কাঠ কুড়োতে গিয়েছিল নাবালিকা। মা- বাবা আগেই চলে গিয়েছিল। পরে সাইকেল নিয়ে যাচ্ছিল কিশোরী। অভিযোগ, সেই সময় ফাঁকা রাস্তায় দাসপুরের ভুতা গ্রামের বছর ৩০ এর শেখ সইদুল নামে এক যুবক ওই কিশোরীর শ্লীলতাহানি করে। অনেক কষ্টে তার হাত থেকে পালিয়ে প্রাণে বাঁচে ওই কিশোরী। বিষয়টি থানায় জানানোর পরিকল্পনা করেছিল পরিবার। কিশোরী চেয়েছিল অভিযুক্তের কঠিন শাস্তি।

সালিশির দাসপুরে আত্মঘাতী কিশোরী, একই দিনে ঘাটালে আত্মঘাতী আরেক কিশোরী 2

এরমধ্যেই শনিবার বিকেলে আচমকা কিশোরীর বাড়িতেই গোপনে সালিশি সভা বসায় গ্রামের মাতব্বরেরা। ছেলেটিকে ডাকা হয় সেই সভায়। হাজির হতে বলা হয় মেয়েটিকেও। সবার সামনেই মেয়েটিকে জিজ্ঞাসা করা হয় ঘটনার কথা। উপস্থিত মাতব্বরের দল কিশোরীকে প্রশ্ন করে শরীরের কোথায় কোথায় হাত দিয়েছিল অভিযুক্ত। সেদিন সমস্যা না মেটায় ফের সালিসি বসানো হবে বলে জানিয়ে যায় গ্রাম্য মাতব্বরের দল আর সামান্য বিষয় নিয়ে জলঘোলা না করে বিষয়টি মিটিয়ে নিতেও বলা হয়। এমনকি থানায় অভিযোগ না জানানোর কথাও বলা হয়। সালিসি শেষ হলেই ঘরের ভিতরে ঢুকে শনিবার রাতে গলায় ফাঁস নিয়ে অপমানে আত্মঘাতী হয় ওই কিশোরী।

এদিকে ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফে পুলিশে খবর দেওয়া হলে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়৷ এরপরই মূল অভিযুক্ত শেখ সইদুলকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু অভিযুক্তের এলাকার প্রভাবশালীদের সাথে মেলামেশা হওয়ায় সহজেই তাকে ছেড়ে দেওয়া হতে পারে এই আশঙ্কায় রবিবার স্থানীয় বাসিন্দারা দোষীর উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে থানায় বিক্ষোভ দেখায়। এবিষয়ে জেলা পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, “ঘটনার পর অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার কয়া হয়েছে। ঘটনা প্রমানিত হলে আদালত তাকে শাস্তি দেবেন।”

এদিকে একই দিনে ঘাটালে আরও এক আত্মহত্যার ঘটনা সামনে আসে। ঘাটালের নুকুড় গ্রামের একটি বাঁশ বাগানে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। এখানেও মৃতা বছর ১৫-র কিশোরী৷ জানা গিয়েছে, শনিবার সকালে বাঁশ বাগান দিয়ে যাওয়ার পথে এলাকার কিছু মানুষজন প্রথম ওই কিশোরীকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। এরপর তারা দ্রুত ওই কিশোরীর পরিবারের লোকেদের খবর দিলে তারা এসে স্থানীয়দের সহায়তায় তড়িঘড়ি মৃতদেহটি উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান প্রেমঘটিত সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরেই আত্মঘাতী হয়েছে ওই কিশোরী। শনিবার বিকালেই প্রেমিকের সাথে বাইকে ঘুরতে দেখা গিয়েছিল তাকে।  ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Previous articleহাসপাতাল ফেরাতেই যন্ত্রনা থেকে মুক্তি পেতে আত্মহত্যা প্রৌঢ়র, ছেলের শোকে মৃত বৃদ্ধ বাবাও
Next articleবিপুল সংখ্যক কর্মী ছাটাইয়ের পথে টাটা গ্রুপ, আশঙ্কায় কয়েক হাজার কর্মী