চন্দ্রকোনায় মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনা! বাজার করে ফেরার পথে বাসের তলায় পিষ্ট কাকা ভাইপো, পলাশচাবড়িতে দুর্ঘটনায় মরণাপন্ন ১বাইক আরোহী

217
চন্দ্রকোনায় মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনা! বাজার করে ফেরার পথে বাসের তলায় পিষ্ট কাকা ভাইপো, পলাশচাবড়িতে দুর্ঘটনায় মরণাপন্ন ১বাইক আরোহী 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: মকর সংক্রান্তির পরের দিনই এক মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল কাকা ও ভাইপোর। শুক্রবার সাত সকালে ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে চুড়িপুকুর এলাকায়। চুড়িপুকর জায়গাটি ঘাটাল-চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়কের ওপর অবস্থিত। জানা গেছে মৃত ২জন একটি বাইকে করে বাজার থেকে নিজেদের বাড়ি মদনমোহনপুরে ফিরছিলেন। অন্যমনস্ক থাকায় এদিক ওদিক না দেখেই সরাসরি রাজ্য সড়ক অতিক্রম করে অপর প্রান্তের রাস্তা ধরতে চেয়েছিলেন ওই দুজন আর তখনই ঘাটালের দিক আসা চন্দ্রকোনাগামী বাসের সামনে পড়ে যান তাঁরা। সরাসরি বাসের তলায় বাইক সমেত চলে যায় ওই দুই তরুণ।

চন্দ্রকোনায় মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনা! বাজার করে ফেরার পথে বাসের তলায় পিষ্ট কাকা ভাইপো, পলাশচাবড়িতে দুর্ঘটনায় মরণাপন্ন ১বাইক আরোহী 2

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রাস্তা প্রশস্ত ও ফাঁকা হওয়ার কারণেই বাসের গতি কিছুটা বেশিই ছিল আর সেই সময় রাস্তার এক প্রান্ত থেকে সরাসরি মূল রাস্তার ওপরে উঠে আসে বাইকটি। হঠাৎই ২ বাইক আরোহীকে রাস্তার ওপর চলে আসতে দেখে প্রানপনে তাঁদের বাঁচানোর চেষ্টা করেন ঘাটাল- চন্দ্রকোনা বাসের চালক রাস্তার একপ্রান্তে বাসটি ঘুরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন তিনি।

চন্দ্রকোনায় মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনা! বাজার করে ফেরার পথে বাসের তলায় পিষ্ট কাকা ভাইপো, পলাশচাবড়িতে দুর্ঘটনায় মরণাপন্ন ১বাইক আরোহী 3

কিন্তু ততক্ষনে বাসের তলায় ঢুকে গেছে বাইক সহ ওই দুই আরোহী। বাইক সমেতই বাসটির প্রথম চাকায় টেনে হেঁচড়া হয়ে অনেকটাই চলে যায় ওই দুজন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁদের। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে মৃতরা চন্দ্রকোনার মদনমোহনপুরের বাসিন্দা রাজু দাস (৩২) ও লালু দাস (২৮) বলে জানা গিয়েছে। সম্পর্কে তাঁরা কাকা ভাইপো।

এদিকে বাইক আরোহীদের বাঁচাতে গিয়ে রাস্তার ধারে একটি লটারি দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তিকে ধাক্কা মারে বাসটি। গুরুতর আহত হন দেবাশিস মণ্ডল নামের ওই ব্যক্তি। তাঁর বাড়ি চুড়িরপুকুর এলাকাতেই। গুরুতর চোট থাকায় তাঁকে উদ্ধার করে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বাসের তলায় দুই চাকা এবং বাইকের মধ্যবর্তী অবস্থায় ফাঁদের মধ্যে আটকে পড়ে দুটি মৃতদেহ। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসা চন্দ্রকোনা থানার পুলিশ অনেকক্ষনের প্রচেষ্টায় দুই বাইক আরোহীদের বাসের তলা থেকে কোনও রকমে বের করে ময়নাতদন্তের জন্য ঘাটাল মহকুমা হাসপাতালে পাঠায়। দুর্ঘটনার জেরে বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ হয়ে যায় ঘাটাল-চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়ক। পুলিশ ঘাতক বাসটিকে আটক করেছে, চালক পলাতক।

ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে মৃতদের গ্রামে। গ্রামের দিকে সংক্রান্তির দিন স্থানীয় উৎসব আউনি বাউনি। সেদিন বাড়িতে রান্না হয়না। আগের দিনের বানানো পিঠে, মকর, মুড়ি ইত্যাদি খাওয়ার রেওয়াজ। পরের দিন খোলা বিশ্রাম। বাড়িতে মাংস অথবা ভাল মন্দ খাওয়ার রেওয়াজ। সেই উপলক্ষ্যেই বাজার করার জন্য বেরিয়েছিলেন ওই দুই যুবক কিন্তু বাড়ি ফেরা হলনা তাঁদের।

এই দিনই চন্দ্রকোনা এলাকার পলাশচাবড়ি আরেকটি পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরেক বাইক আরোহী। হেলমেটহীন ওই যুবক খুব জোরে বাইক চালিয়ে যাওয়ার সময় সরাসরি ধাক্কা মারে রাস্তার পাশে একটি খুঁটিতে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই যুবককে স্থানীয়রাই উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করছেন। যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেই জানা গেছে।

Previous articleআজকের রাশিফল, ১৬ই জানুয়ারি’২০২১
Next articleখড়গপুর শহরে সক্রিয় হচ্ছে দুষ্কৃতিরা, পুলিশের জালে ২, উদ্ধার বন্দুক ও গুলি