ক্রমশ চওড়া হচ্ছে করোনার থাবা, মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু, উদ্বেগ রাজসভার অন্দরে

121
ক্রমশ চওড়া হচ্ছে করোনার থাবা, মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু, উদ্বেগ রাজসভার অন্দরে 1

ওয়েব ডেস্ক : বর্তমানে গোটা দেশে করোনার থাবা ক্রমশ চওড়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন একের পর এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংসদ। তাদের মধ্যে অনেকেই এই মূহুর্তে সুস্থ। অনেকে আবার করোনা যুদ্ধে হেরে গিয়েছেন। এবার করোনা আক্রান্ত হলেন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু। মঙ্গলবার উপরাষ্ট্রপতি নিজেই তাঁর সরকারি টুইটারের মাধ্যমে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে এই কথা জানান। উপরাষ্ট্রপতি জানান, তিনি করোনায় আক্রান্ত হলেও একেবারেই উপসর্গহীন। সেকারণে আপাতত তাঁর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার প্রয়োজন হয়নি। তিনি বাড়িতেই হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

আরও পড়ুন -  বর্ণাঢ্য আতসবাজি প্রদর্শনী দিয়ে শেষ হল খড়গপুরে ছাত্র যুবদের দিনরাতের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

এদিন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু টুইটারে জানান, এমনিতে উপসর্গ না থাকলেও দিন দুয়েক আগে তাঁর রুটিন করোনা পরীক্ষা হয়েছিল। সেই রিপোর্ট আসতেই জানা যায়,উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত। তবে উপসর্গহীন হওয়ায় আপাতত তিনি সুস্থ আছেন। তবে উপরাষ্ট্রপতি করোনা আক্রান্ত হলেও তাঁর স্ত্রীর করোনা নেগেটিভ। তবে আপাতত তিনি বাড়িতেই আলাদাভাবে আইসোলেশনে রয়েছেন।

ক্রমশ চওড়া হচ্ছে করোনার থাবা, মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু, উদ্বেগ রাজসভার অন্দরে 2

প্রসঙ্গত, যেহেতু ভেঙ্কাইয়া নাইডু উপরাষ্ট্রপতি হওয়ার পাশাপাশি একই সাথে তিনি রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানও বটে। সেকারণে নিয়মিত তাকে রাজ্যসভায় উপস্থিত থাকতে হয়। সংসদে বাদল অধিবেশন শুরুর আগে সাংসদদের করোনা পরীক্ষা করা হলে জানা যায়, বেশিরভাগ সাংসদ করোনায় আক্রান্ত। সেকারণে চলতি বছর মাত্র ২দিনে বাদল অধিবেশন শেষ হয়ে যায়। এদিকে অধিবেশন চলাকালীন নিয়মিত সংসদে গেছেন ভেঙ্কাইয়া নাইডুও। কিন্তু সেসময় তাঁর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও প্রায় এক সপ্তাহ বাদে পজিটিভ এল তাঁর করোনা টেস্ট। এদিকে উপরাষ্ট্রপতি মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই উদ্বিগ্ন গোটা দেশ।