মাঝ রাতের আগেই বসে গেল হোয়াটস্যাপ, আধ ঘন্টা নাজেহাল ব্যবহারকারীরা

362
মাঝ রাতের আগেই বসে গেল হোয়াটস্যাপ, আধ ঘন্টা নাজেহাল ব্যবহারকারীরা 1

অশ্লেষা চৌধুরী: হঠাৎ করে অচল হোয়াটস্যাপ। না তো ম্যাসেজ যাচ্ছে আর না ম্যাসেজ আসছে। শুক্রবার রাত প্রায় ১১ টা নাগাদ আচমকাই কাজ করা বন্ধ করে দেয় হোয়াটস্যাপ। আর হোয়াটস্যাপ বিভ্রাট দেখে বিভ্রান্ত হয়ে পড়েন লক্ষ লক্ষ ব্যবহারকারী। বেশির ভাগ মানুষেই ছুটে যান অন্য জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে।

মাঝ রাতের আগেই বসে গেল হোয়াটস্যাপ, আধ ঘন্টা নাজেহাল ব্যবহারকারীরা 2

ফেসবুকে নিজেদের ওয়ালে পোস্ট করে অনুসন্ধান করতে শুরু করেন সকলেই একই সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন কিনা! উত্তরও আসে বেশ জলদি। হোয়াটস্যাপ কাজ না করায় মুষড়ে পড়েন ব্যবহারকারীরা। যদিও প্রায় ৩০ মিনিটের মধ্যে বিভ্রাট মুক্ত হয়ে পুনরায় কাজ করা শুরু করে দেয় হোয়াটস্যাপ। তবে কী জন্য এই বিভ্রাট তা এখনও স্পষ্ট নয়। কারণ জানতে চলছে অনুসন্ধান। তবে হোয়াটস্যাপের পাশাপাশি, কোনও ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের ক্ষেত্রেও কিছু কিছু জায়গা থেকে এই বিভ্রাটের খবর আসতে থাকে।

মাঝ রাতের আগেই বসে গেল হোয়াটস্যাপ, আধ ঘন্টা নাজেহাল ব্যবহারকারীরা 3

এদিকে হোয়াটস্যাপ কাজ না করার অন্য সামাজিক মাধ্যমে বয়ে যায় মিমসের বন্যা। উদাস ব্যক্তির ছবি পোস্ট করে কেউ কেউ লেখেন, Me when whatsapp Instagram isn’t working. দুরন্ত গতির ভিডিও পোস্ট করে একজন ট্যুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, Everyone running to Twiitter to cheak if Instagram is down or they got hacked. কেউ বা ট্যুইটারে মজা করে লেখেন, When Instagram crashes, the people of Twitter. সবচেয়ে মজার বিষয় হল, যখন ফেসবুক, হোয়াটস্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম কিছুক্ষণের জন্য স্তব্ধ হয়ে যায়, তখন পেটিএমের পক্ষ থেকেও কটাক্ষ করা হয়। ট্যুইটারে পেটিএমের পক্ষ থেকে লেখা হয়, Your Internet is fine. It’s the aaps. Now you know why monopolies are a bad idea.

তবে, যত রকম মজার পোস্ট যে কেউ করে থাকুন না কেন, হোয়াটস্যাপ কিছুক্ষণের জন্য অচল হয়ে পড়ায় ব্যবহারকারীরা যে জোর ধাক্কা খায় এবং উদাস হয়ে পড়েন, সে নিয়ে দ্বিমত নেই কারও।

Previous articleএকনজরে আজকের রাশিফল
Next article১০ বছর আগের পোষাক বিতর্ক আবারও উস্কে দিলেন চিরঞ্জিৎ