পিছু ছাড়ছেননা স্ত্রী! বউ পেটানো একাধিক মহিলা সঙ্গ অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থী স্বামীর বিরুদ্ধে প্রচারে নামছেন শিক্ষিকা

475
পিছু ছাড়ছেননা স্ত্রী! বউ পেটানো একাধিক মহিলা সঙ্গ অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থী স্বামীর বিরুদ্ধে প্রচারে নামছেন শিক্ষিকা 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: ২৭৩ কিলোমিটার দুরে পালিয়ে এসেছেন বউয়ের জ্বালায় কিন্তু তাতেও রেহাই নেই উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়ের। মহিলা জানিয়ে দিয়েছেন তিনি সেখানে গিয়েও প্রচারে নামবেন বউ পেটানো স্বামীর বিরুদ্ধে। আলিপুরদুয়ার অর্থাৎ এখানেই বর্তমানে থাকেন ওই শিক্ষিকা স্ত্রী। আলিপুরদুয়ার থেকে কালিয়াগঞ্জের দূরত্ব ৩৫৪ কিলোমিটার। সেই দূরত্ব অতিক্রম করেই স্বামীর বিরুদ্ধে প্রচারে যাবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন স্ত্রী। গৃহবধূ নির্যাতন, স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত একাধিক নারীসঙ্গ ইত্যাদি নিয়ে বিস্তর গন্ডগোলের পর মামলা গড়িয়েছে আদালত অবধি। এরই মধ্যে প্রথমে ফালাকাটার সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবেই নাম শোনা গিয়েছিল বিজেপি নেতা সৌমেন রায়ের। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনে পোস্ট করেছিলেন। পরে প্রার্থী হিসেবে কেন্দ্র পরিবর্তন হয়। এবার কালিয়াগঞ্জে মানুষের স্বার্থে সেই স্বামীর বিরুদ্ধেই প্রচারে যেতে চাইছেন স্ত্রী। পেশায় শিক্ষিকা আলিপুরদুয়ারের বাসিন্দা শর্বরী সিনহা রায়। পুরো ঘটনায় ঘেঁটে ঘ বিজেপি! একে প্রার্থী অসন্তোষের জেরে বিজেপির ঘরে আগুন তার ওপর এই ঘটনা সামনে চলে এসেছে।

পিছু ছাড়ছেননা স্ত্রী! বউ পেটানো একাধিক মহিলা সঙ্গ অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থী স্বামীর বিরুদ্ধে প্রচারে নামছেন শিক্ষিকা 2

অভিযোগ বিয়ের পর ২০০৮ সাল থেকে স্বামী অর্থাৎ বর্তমানে বিজেপি কালিয়াগঞ্জের প্রার্থী সৌমেন রায় তার উপর শারিরিক এবং মানসিক অত্যাচার চালিয়ে এসেছেন। অভিযোগ একাধিক মহিলার সঙ্গেও সম্পর্ক আছে তাঁর। প্রভাব খাটিয়ে চাকরির নামে লক্ষ টাকা প্রতারিত করেছেন বলেও দাবি শর্বরী সিনহা রায়ের। কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ থেকে পালিয়ে এসে সৌমেন রায় বর্তমানে ফালাকাটায় পাকাপাকি থাকতে শুরু করেন।  স্ত্রীকে ডিভোর্স দেবার আইনি প্রক্রিয়াও চলছে বলে জানা যায়। এই অবস্থায়, সৌমেন রায় ফালাকাটা বিজেপির সম্ভাব্য প্রার্থী হতে পারে খবরেই তার স্ত্রী শর্বরী সিনহা রায় সোশাল মিডিয়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে গর্জে সরব হন। সৌমেন রায়কে যাতে প্রার্থী পদ দেওয়া না হয় বিজেপির কাছে সেই বার্তা দেন সোশাল মিডিয়ার। গত ১৩ মার্চ সেই পোস্ট করেন তিনি। সেই  ভিডিও ভাইরাল হতেই শুরু হয় চাঞ্চল্য। কিন্তু,  আলিপুরদুয়ারে প্রার্থীপদ না পেলেও সৌমেন রায় কালিয়াগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী ঘোষণা হওয়ায় তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন শর্বরী রায়।

পিছু ছাড়ছেননা স্ত্রী! বউ পেটানো একাধিক মহিলা সঙ্গ অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থী স্বামীর বিরুদ্ধে প্রচারে নামছেন শিক্ষিকা 3

এরপরই কালিয়াগঞ্জের মানুষের স্বার্থে তিনি সবাইকে মানুষকে সৌমেন রায়ের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠার ডাক দেন। একই ভাবে তাঁর মনোনয়ন বাতিল করার বার্তাও দিতে চান বিজেপির কাছেও। প্রয়োজনে তিনি কালিয়াগঞ্জে গিয়েও স্বামী সৌমেন রায়ের বিরুদ্ধে প্রচার চালাবেন, যাতে দ্বিতীয় শর্বরি সিনহা রায় আর কেউ না হয়।

যদিও বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায় সব অভিযোগই তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন। পাল্টা স্ত্রীকে আক্রমণ করছেন তিনি। তাঁর দাবি, সত্যি প্রকাশ্যে আসবে। যতই তার বিরুদ্ধে প্রচার হোক, কালিয়াগঞ্জের মানুষ তাকেই আশীর্বাদ করবে বলে দাবি বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়ের। এই মুহুর্তে বহিরাগত প্রার্থী নিয়ে রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মীদের ক্ষোভ যখন চরম সীমায়, সেখানে আলিপুরদুয়ারের বিতর্কিত বিজেপি কর্মীকে কীভাবে কালিয়াগঞ্জের মানুষ মেনে নেয় এখন সেটাই দেখার। এরই মধ্যে আগে ভাগেই দায় এড়িয়েছেন উত্তর দিনাজপুরের বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী।

বৃহস্পতিবার উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া, ইসলামপুর, গোয়ালপোখর, চাকুলিয়া, হেমতাবাদ, রায়গঞ্জ এবং কালিয়াগঞ্জ— এই ৭টি আসনে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে বিজেপি। কিন্তু ৬ জন প্রার্থীকে চিনতে পারলেও, প্রাথমিক ভাবে কালিয়াগঞ্জের প্রার্থীকে চিনতে পারলেন না বিজেপি-র উত্তর দিনাজপুর জেলার সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ি। বিজেপি কালিয়াগঞ্জের প্রার্থী করেছে সৌমেন রায়কে। বিশ্বজিতের দাবি, ‘‘কালিয়াগঞ্জের প্রার্থীর ছবি ফেসবুকে দেখলাম। আমি ওঁকে চিনি না। হয়তো আমাদের এলাকার বাসিন্দা নয়। হয়তো হেভিওয়েট কোনও প্রার্থী হবেন। তাই ঘোষণা করা হয়েছে।’’ জেলা সভাপতি হয়ে দলীয় প্রার্থীকে চিনতে পারছেন না! একরাশ বিস্ময়ের মুখে বিশ্বজিতের জবাব, ‘‘প্রার্থী নিয়ে অনেক সমীক্ষা হয়। সেই মোতাবেক কোন স্তর থেকে তাঁর নাম গিয়েছে, কী ভাবে হয়েছে, সেটা কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বা রাজ্য নেতৃত্ব জানেন। সাংসদ বলতে পারবেন। এখন না চিনলেও, পরে চেনা হয়ে যাবে। ওঁকে তো আসতেই হবে।’’

Previous articleজেনে নিন আজকের রাশিফল
Next articleসিঙ্গুরে মাস্টারমশাইকে প্রার্থী করার বিরুদ্ধে অনশনে অংশ না নেওয়ায় নেতার বাড়িতেই ভাঙচুর চালালেন বিজেপি কর্মীরা