প্রেমের সম্পর্ক অবনতি! গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা মেদিনীপুর শহরের যুবকের

734
প্রেমের সম্পর্ক অবনতি! গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা মেদিনীপুর শহরের যুবকের 1

সংবাদদাতা: কয়েক বছরের প্রেম কিন্তু ইদানিং ঠিক মত পাত্তা দিচ্ছিলনা প্রেমিকা। শুধু তাই নয় জানা গেছে প্রেমের সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছিল প্রেমিকা। কিছুদিন ধরে তার মন ফেরাতে না পেরে প্রেমিকার বাড়ির সামনেই গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করল মেদিনীপুর শহরের এক যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে মেদিনীপুর শহর ছাড়িয়ে কয়েক কিলোমিটার দুরে গুরগুড়িপাল থানা এলাকার লোহাটিকরি গ্রামে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা নাগাদ। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে পুলিশ মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করেছে।

প্রেমের সম্পর্ক অবনতি! গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা মেদিনীপুর শহরের যুবকের 2

পুলিশ জানিয়েছে গনেশ পাত্র নামে ওই যুবক মেদিনীপুর শহরের ইন্দিরা পল্লীর বাসিন্দা। ঘটনায় আকাশ ভেঙে পড়েছে যুবকের পরিবারের মাথায়। দুর্ঘটনার বিষয়টি নিয়ে কিছুই জানতনা। পুলিশের কাছে খবর পেয়ে তড়িঘড়ি হাসপাতালে পৌছায় তারা। পরিবারের দাবি সকাল বেলা কাজ আছে বলে সাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেছিল যুবক। এরপর পুলিশের কাছেই তারা দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যায়।।

প্রেমের সম্পর্ক অবনতি! গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা মেদিনীপুর শহরের যুবকের 3

স্থানীয় সূত্র অবশ্য জানাচ্ছে, ইন্দিরাপল্লী থেকে ঘটনাস্থলের দূরত্ব ৯কিলোমিটার। কয়েকদিন আগে অবধি যুবক নিয়মিত আসত সাইকেল চালিয়ে। মেয়েটির সাথে গল্প গুজব করত এমনকি আশেপাশে বেড়াতে যেতেও নাকি দেখা গিয়েছে দুজনকে। মোট কথা দুজনের প্রেমের সম্পর্কের কথা জানতেন অনেকেই এমনকি মেয়ের পরিবারেরও তা জানা ছিল বলে লোহাটিকরি এলাকার অনেকেই দাবি করেছেন।

বৃহস্পতিবারের ঘটনা সম্পর্কে স্থানীয় মানুষদের দাবি, এদিন সকালে লোহাটিকরি গ্রামে ওই যুবতীর বাড়িতে চিৎকার চেঁচামেচি শুনতে পায় স্থানীয় মানুষরা। ওই যুবকের সাথে যুবতীর বাড়ির লোকজনদের বচসা হতে দেখেন তাঁরা। সৌজন্যবশতই মনুষজন বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেনি। এরপরই তারা হঠাৎই দেখতে পান ওই মেয়েটির বাড়ির দরজার সামনেই দাউ দাউ করে জ্বলছে ছেলেটি । চোখের সামনেই এমন ঘটনা দেখে হকচকিয়ে যায় আশেপাশের মানুষজন। হতভম্ব ভাব কাটিয়ে তাঁরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। যুবক ততক্ষনে অনেক খানিই জ্বলে গেছিল। এরপরই পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে উদ্ধার করে যুবককে, নিয়ে আসে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন যুবক। তাঁর ২ হাত, গলা, বুক ও পেট পুড়েছে। মুখমন্ডলেও আগুনের আঁচ রয়েছে। সব মিলিয়ে প্রায় ৭০% জ্বলে গিয়েছে যুবক। কী করে এই ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ওই যুবক কী আত্মহত্যা করার দৃঢ় মানসিকতা নিয়েই বাড়ি থেকে বেরিয়ে কেরোসিন তেল বা পেট্রোল সংগ্ৰহ করে নিয়ে গিয়েছিল? এই তথ্য সংগ্ৰহ করছে পুলিশ। ঘটনার পরই বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে তরুনীর পুরো পরিবারই। তাঁদের খোঁজ করছে পুলিশ।

Previous articleজলকামানের জলে রাসায়নিক, দাবি বিজেপির! রক্তবমি করে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিজেপি নেতা রাজু বন্দোপাধ্যায়
Next articleধর্ষণ নয় বরং অনার কিলিং এর শিকার হাথরসের নির্যাতিতা, বিস্ফোরক দাবি ৪ অভিযুক্তের