নখ কাটতে গিয়ে আপনিও এসব ভুল করছেন না তো!

217
নখ কাটতে গিয়ে আপনিও এসব ভুল করছেন না তো! 1

অশ্লেষা চৌধুরী: নিজেকে সুন্দর ভাবে সাজিয়ে তুলতে কে না চায়! আর এই সুন্দর করে সাজারই একটি অংশ হল নখ বিভিন্ন রঙে রাঙিয়ে তোলা। তাই নারীরা নখের একটু বেশিই যত্ন করে থাকেন।একেক সময় এক এক রঙে ও ডিজাইনে সাজিয়ে তুলতে ভালোবাসেন তারা। সেজন্য হাত ও পায়ের নখ বড় রাখতেও ভালোবাসেন তারা। কিন্ত নখ বড় রাখা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়াও নখ বেশি বড় ও চিকন হয়ে গেলে ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। কোন কোন সময় নখ বেকায়দায় ভেঙ্গে গিয়ে আপনি আহতও হয়ে যেতে পারেন।এমনকি হতে পারে রক্তপাতও তাই এই অবস্থায় আসার আগেই নখ কেটে ফেলা উচিৎ। তবে আপনি কী জানেন, নখ কাটার সময় করা কিছু ভুল আপনার অজান্তেই বিপদ ডেকে আনছে! জেনে নিন কী কী সেসব ভুল-

যদি সঠিকভাবে নখ কাটা না হয়, তাহলে হ্যাঙ্গনেলস, ওনিকোলাইসিস, ইনগ্রোন নেলস (যা বেশিরভাগ পায়ের নখে হয়) ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে। দাঁত দিয়ে নখ কাটলেও নখের ক্ষতি হয়।

নখ কাটতে গিয়ে আপনিও এসব ভুল করছেন না তো! 2

যদি নখ চোখা করে কাটা হয়, তাহলে নখ দুর্বল হয়ে যেতে পারে। তাই গোলাকারভাবে নখ কাটতে হবে।

মোটামুটি দৈর্ঘ্য রেখে নখ কাটতে হবে। খুব ছোট করে আবার নখ কাটলে নখের নিচের চামড়া বেরিয়ে আসবে। এতে রক্তপাত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

যদি দেখা যায়, নখ খুব শক্ত হয়ে আছে, তাহলে না কাটাই ভালো।এক্ষেত্রে কয়েক মিনিট গরম জলে হাত বা পা চুবিয়ে নিয়ে তারপর নখ কাটা উচিৎ।

নখ কাটলে বা ট্রিম করলে নখ থেকে আর্দ্রতা হারিয়ে যায়। এতে নখ শুষ্ক ও ভঙ্গুর হয়ে যায়। তাই নখ কাটার পর হাতে একটু ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে হাল্কা মাসাজ করে নিতে হবে।

নখ আমাদের শরীরের এক ধরনের ফাইবারযুক্ত টিস্যু। তাই নখ সহজে ফেটে যায়। এই ফাটল নখ দুর্বল করে দেয় সহজেই, নখকে আরও ভঙ্গুর করে তোলে এই ফাটল।

নখ ফাইলিং করা একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ। ফাইলিং করার সময় একটা কথা মাথায় রাখতে হবে। ফাইলিং সবসময় একদিক থেকে করা উচিৎ।
সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা, নিজের আলাদা নেল ক্লিপার না থাকলে নেল কাটিং-এর সমস্ত জিনিস জীবাণুমুক্ত করে নিতে হবে। অ্যালকোহলযুক্ত কোনও স্যানিটাইজার দিয়ে এগুলো ধুয়ে নিতে হবে। শুকিয়ে গেলে তবে ব্যবহার করবেন।